সুযোগটি মিস হয়ে যেতে পারতো: নাঈম সুযোগটি মিস হয়ে যেতে পারতো: নাঈম – Narail news 24.com
সোমবার, ০৪ মার্চ ২০২৪, ০২:৩৭ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
ভবন নির্মাণে বিল্ডিং কোড অনুসরণ নিশ্চিত করতে ডিসি সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রীর আহ্বান নড়াইলে জি আর প্রকল্পের হরিলুট ! নড়াইলে স্বাস্থ্য বিভাগের অভিযান: ল্যাবস্টার ডায়াগনস্টিক সেন্টার বন্ধ ঘোষনা লোহাগড়ায় আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে দুপক্ষের সংঘর্ষে আহত ১৩ নড়াগাতীতে ট্রলি থেকে ছিটকে পড়ে প্রাণ গেল হেলপারের নড়াইলে স্মরণসভা সভা অনুষ্ঠিত যেকোনো পরিস্থিতি মোকাবেলায় সশস্ত্র বাহিনীকে সক্ষম করে তোলা হচ্ছে – প্রধানমন্ত্রী অবৈধ বা যন্ত্রপাতিহীন হাসপাতাল বন্ধে অভিযান চলবে – স্বাস্থ্যমন্ত্রী দেশে মোট ভোটার ১২ কোটি সাড়ে ১৮ লাখ – সিইসি বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া ছাত্রীকে উত্ত্যক্তের প্রতিবাদ করায় মাদরাসার ছাত্র খুন, আহত-২

সুযোগটি মিস হয়ে যেতে পারতো: নাঈম

Reporter Name
  • Update Time : মঙ্গলবার, ৮ জুন, ২০২১

 নড়াইল নিউজ ২৪.কম  বিনোদন ডেস্ক:

এবার ঈদে প্রচারিত হওয়া ১২টি নাটকের মধ্যে ‘আতরগন্ধি’, ‘আবির ভাইয়ের মাথা গরম’, ‘শুভ কামনা’সহ একাধিক নাটকেই বেশ ভালো সাড়া পেয়েছেন জনপ্রিয় অভিনেতা এফ এস নাঈম। নাটকের রেসপন্স নিয়ে ভালোই খুশি তিনি। এখনো বেশ ব্যস্ত সময় পার করছেন। সম্প্রতি এক আড্ডায় নানা বিষয়ে কথা হয় এ তারকার সঙ্গে। সেই আলাপের চুম্বকাংশ পাঠকদের জন্য তুলে ধরা হলো:-

অভিনেতা এফ এস নাঈম নাকি হারিয়ে গিয়েছিলেন! সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যিনি কিনা খুব একটিভ ছিলেন তিনিই কিনা হঠাৎ করে নিরব হয়ে গেলেন। ঘটনা কি?

হাহাহা! আসলে তেমন কিছুই না। আর হারানোর মতো কিছুই হয়নি। আমি প্রায় প্রতিদিনই ব্যস্ত ছিলাম, কাজের শুটিং করছিলাম। কাজ শেষে সোজা বাসা, বিশ্রাম আর পরদিন শুটিং। এভাবেই সময়টা পার করেছি। এছাড়া অন্য কোনো কারণ নেই। আর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম এখন খুব বেশি একটা ভালো লাগে না। এখানে সময় দেওয়ার চেয়ে নিজেকে এবং কাজকে সময় দেওয়াটাই আমার কাছে গুরুত্বপুর্ণ মনে হয়েছে। এছাড়া আর কিছু না।

অভিনেতা নাঈমের নতুন এক প্রত্যাবর্তন। হঠাৎ করেই নতুন গেটাপ, গিটনেস; এক কথায় ট্রান্সফরমেশন। এর রহস্যটা কী?

আমি শুধু সময়টা কাজে লাগিয়েছি। নিজের মধ্যে একটা পরিবর্তন আনা দরকার মনে হয়েছিলো, সেটাই করেছি। আমি খুবই এনজয় করেছি এবং করছিও। আমার এই ট্রান্সফর্মেশনে এত বেশি সাড়া পেয়েছি যা ভাষায় প্রকাশ করার মত না। আমার অনেক সহকর্মী, ভাই-বন্ধু থেকে শুরু করে অনেকেই অনেক প্রশংসা করেছেন। আমি সত্যি অনেক বেশি ভাগ্যবান যে সবাই আমাকে এত বেশি ভালোবাসেন। আমি দেখি যে, এক অপূর্ব ভাইয়া যাকে সবাই এতো বেশি পছন্দ করেন, ভালোবাসেন। ভাইয়ার পর মনে হয় আমি যে, আমাকে সবাই এত ভালোবাসেন। সত্যি বলতে আমি সবার এত ভালোবাসায় সিক্ত। সবাই এত বেশি ভালোবাসেন যার কারণে আমার কোনো হেটার্স নেই।

সম্প্রতি জিয়াউল ফারুক অপূর্ব এবং আপনি অনেকদিন পর একসাথে পর্দা ভাগাভাগি করেছেন। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিষয়টি এখন আলোচনার কেন্দ্রে। কাজটি সম্পর্কে জানতে চাই…

হ্যাঁ, অপূর্ব ভাইয়ার সঙ্গে ৩ বছর পর কাজ হলো। আমরা সর্বশেষ একসাথে ‘ফ্রেন্ডস’ নাটকে কাজ করেছিলাম, বানিয়েছিলেন মাহমুদুর রহমান হিমি। এবার যেই কাজটি করা হয়েছে সেটাও হিমিরই নির্মাণ। এখন পর্যন্ত নাটকটির নাম রোড ট্রিপ, তবে নামটি পরিবর্তন হবে। প্রথমত, গল্পটা খুবই চমৎকার আর দ্বিতীয়ত অপূর্ব ভাইয়া। কাজটির জন্য হঠাৎ করেই আমার কাছে প্রস্তাব আসে। আমার তখন আফসানা মিমি আপার নির্দেশনায় একটি কাজ করার কথা ছিলো। উনার সঙ্গে আমার আগে কখনো কাজ হয়নি, হলে এটা প্রথম কাজ হতো। যখন অপূর্ব ভাইয়া আমাকে বললেন যে, নাঈম কাজটা তোর করতে হবে তখন আমি এক কথাতেই রাজি হয়ে যাই। মিমি আপার জন্য ডেট দেওয়া ছিলো আমার। তখন আমি আপার সাথে বিষয়টি শেয়ার করি এবং আপাও রাজি হন। সত্যি বলতে মিমি আপা সহযোগীতা না করলে হয়তো এ সুযোগটি মিস হয়ে যেতো। মিমি আপার প্রতি অনেক কৃতজ্ঞতা।

শুধু বলবো, চমৎকার একটি কাজ হয়েছে আমাদের। এটা নিয়ে কিছুই বলবো না। দর্শকরা আগে দেখুক। আমি যখন ইন্ডাস্ট্রিতে আসি তখনই অপূর্ব ভাইয়া তারকা, আর এখনকার কথা তো সবাই জানে। সেই সময় থেকেই ভাইয়ার পরামর্শ, সাপোর্ট পেয়ে এসেছি আমি। মানুষটা সত্যি অসাধারণ। কখনো তার মধ্যে অহংকার দেখিনি। এখনো কতটা বিনয়ী তিনি। অনেকদিন পর আবারো ভাইয়ার সঙ্গে কাজ, সবকিছু মিলিয়ে আমি রিয়েলি গ্রেটফুল এন্ড অনারড।

এখন ভিউয়ের যুগে অনেক অভিনেতাকে নিয়েই আলোচনা-সমালোচনা হয়। সেদিক থেকে আপনাকে নিয়ে কথাও কোনো আলোচনা নেই। এই বিষয়গুলো কখনো খারাপ লাগে না?

একদম সত্যি কথা যদি বলি, আমি এগুলো নিয়ে কখনোই কিছু ভাবি না। আগেও ভিউ নিয়ে ভাবতাম না, এখনো না। তবে হ্যাঁ, এখন ভিউয়ের একটা ট্রেন্ড চলছে বলা যায়। ভিউ মানে তার কাজ দর্শক বেশি দেখছে। সেটা হতেই পারে। কিন্তু এগুলো আমার চিন্তার বাইরে। আমি সবসময় শুধু আমার কাজটাকে গুরুত্ব দিয়েছি এবং এখনো তাই। আমার পুরোটা মনযোগ থাকে শুধু কাজটা ঘিরে। কাজটাই আমার মেইন ফোকাস, ভিউ নয়। কাজটা ঠিকঠাক মতো করতে পারলেই একটা শান্তি অনুভব করি। আমি খুব শান্তিপ্রিয় এবং আড্ডাবাজ একটা মানুষ। কাজ, কাজের বাইরে আড্ডা দিতে বেশ পছন্দ করি। আমার কাছে মনে হয় সময়টাই তো আনন্দ করার। অন্যকিছু নিয়ে ভেবে মন খারাপ করতে রাজি নই আমি।

তবে, আমি চেষ্টা করছি ট্রেন্ডের সঙ্গে তাল মিলিয়ে চলার। সময় পাল্টাবেই, তার সঙ্গে নিজেকে পরিবর্তন করাটাও জরুরি। আমি সেটাই করছি।

© এই নিউজ পোর্টালের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি

ফেসবুকে শেয়ার করুন

More News Of This Category
পরীক্ষামূলক সম্প্রচার
Developed by: A TO Z IT HOST
Tuhin
x