সাবেক ওসি বলে কথা ! সাবেক ওসি বলে কথা ! – Narail news 24.com
সোমবার, ০৪ মার্চ ২০২৪, ০২:১৩ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
ভবন নির্মাণে বিল্ডিং কোড অনুসরণ নিশ্চিত করতে ডিসি সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রীর আহ্বান নড়াইলে জি আর প্রকল্পের হরিলুট ! নড়াইলে স্বাস্থ্য বিভাগের অভিযান: ল্যাবস্টার ডায়াগনস্টিক সেন্টার বন্ধ ঘোষনা লোহাগড়ায় আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে দুপক্ষের সংঘর্ষে আহত ১৩ নড়াগাতীতে ট্রলি থেকে ছিটকে পড়ে প্রাণ গেল হেলপারের নড়াইলে স্মরণসভা সভা অনুষ্ঠিত যেকোনো পরিস্থিতি মোকাবেলায় সশস্ত্র বাহিনীকে সক্ষম করে তোলা হচ্ছে – প্রধানমন্ত্রী অবৈধ বা যন্ত্রপাতিহীন হাসপাতাল বন্ধে অভিযান চলবে – স্বাস্থ্যমন্ত্রী দেশে মোট ভোটার ১২ কোটি সাড়ে ১৮ লাখ – সিইসি বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া ছাত্রীকে উত্ত্যক্তের প্রতিবাদ করায় মাদরাসার ছাত্র খুন, আহত-২

সাবেক ওসি বলে কথা !

Reporter Name
  • Update Time : শুক্রবার, ৪ জুন, ২০২১
ছবি:-নড়াইল নিউজ ২৪.কম

স্টাফ রিপোর্টার:

নড়াইলে মৃত ছোট ভাইয়ের সম্পত্তি দখলের জন্য আঙ্গিনা ও বসভিটা থেকে প্রায় ৪’শ নানা ধরনের গাছ কেটে নিয়েছেন বড়ভাই সাবেক ওসি স ম আসাব হোসেন। ভাইয়ের একমাত্র পুত্র তানভীর হোসেন প্রবাসে, মেয়েরা ঢাকায় থাকার সুযোগে গাছ কেটে তা নিজ ইচ্ছামতো বিক্রি করছেন। প্রায় ১২ লক্ষ টাকার গাছ কাটার অভিযোগ করেছেন পুত্র তানভীর হোসেন। ভাইয়ের স্ত্রী হাসিনা কবির, ভাতিজার শ্বশুর এমনকি স্থানীয় কোন লোকেরাই ভয়ে প্রতিবাদ করতে পারেন না, ওসির ভয়ে থানায়ও কোন অভিযোগ করার সামর্থ নাই পরিবারের। ঘটনাটি নড়াইলের নড়াগাতি থানার কলাবাড়িয়া ইউনিয়নের কলাবাড়িয়া গ্রামে।

সরেজমিন গিয়ে দেখা যায়, দুই ভাইয়ের পৈত্রিক ভিটায় প্রায় দুই একর জমির চারিদিকে কেবলই কাটা গাছ পড়ে আছে, রেইনট্রি গাছের একটি বাগান তছনছ অবস্থায় কিছু গাছ পড়ে আছে, ৩/৪ বছরের ছোট খাট গাছ কেটে সাফ করা হয়েছে। স্থানীয় ব্যাপারীরা বেশিরভাগ গাছই নিয়ে গেছে। কলাবাড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদ থেকে চেয়ারম্যান এর বাড়ির কাছে রাস্তার পাশে সারি সারি গাছ পড়ে রয়েছে। এসময় সাংবাদিকেরা ছবি তুলছে দেখে তেড়ে আসেন বড়ভাই সাবেক ওসি পরিচয়ধারী আসাব হোসেন। সাংবাদিকদের সাথে হুমকীর সুরে কথা শুরু করেন। এসময় আশে পাশের লোকজন আসলেই তাদের গালি দিয়ে ধমক লাগান। একে একে স্থানীয়রা চলে যায়। ভাইয়ের ছেলের শশুর সৌখিন মুন্সিকে সামনে পেলে পাড়ায়ে মেরে ফেলবেন এসব কথা বলে সাংবাদিকদের ভয় দিতে থাকেন।

ছবি:-নড়াইল নিউজ ২৪.কম

সৌখিন মুন্সি নড়াইল নিউজ ২৪.কমকে বলেন,আমরা বাধা দিতে গেলে ওসি আসাব হোসেন মারতে চলতে আসে, আমার জামাই হয়তো এই ঘটনার জন্য মেয়েকে ছেড়েও দিকে পারে। আপনারা আমার জামাই এই সম্পত্তি টুকু রক্ষা করে দিন।
মৃত কবির হোসেনের বড় ছেলে তানভীর ফোনে জানান, আমার বাবার লাগানো ১৪ লক্ষ টাকার গাছ কেটে নিয়েছে আমার কাকা। আমার কাকা বাপচাচারা দুই ভাই আমার কাকা ছিল ওসি তিনি যখন চাকুরীতে ছিলেন তখন আমার বাবা এসব গাছ লাগিয়ে ছিল বাড়িতে। আমাব বাবা গত বছরের এইটাইমে মারা যায় । মারা যাওয়ার আগে আমার বাবা আমাকে বাবার ভাগের টুকু সম্পওি লেখে দিয়ে যায় ।
গাছ কেটে দখলকারী সাবেক ওসি স ম আসাব হোসেন বলেন, এই বাড়ির জমি নিয়ে মামলা হয়েছিলো তা তো তারা তুলে নিয়েছে, এখন সাংবাদিক কি করবে। আপনাদের কে পাঠিয়েছে ? আমার ভাই জিবীত থাকা অবস্থায় ১৭-১৮ বছর বাড়ির যায়গা-জমি ভোগ দখল করেছে। সে ময় প্রায় ৭ থেকে৮ লক্ষ টাকার গাছ কেটেছে বিক্রী করেছে। আর এখন আমি এইসব জমি ১৭-১৮ বছর বাড়ির যায়গা-জমি ভোগ দখল করবো। যে গাছ কেটেছি তা ঠিক করেছি, দরকার হলে আমি আবার গাছ লাগাব।

ছবি:-নড়াইল নিউজ ২৪.কম

কলাবাড়িয়া ইউনিয়নে চেয়ারম্যান মাহামুদুল হাসান কয়েস নড়াইল নিউজ ২৪.কমকে জানান, সাবেক ওসি স ম আসাব হোসেন ছোট ভাই কবীর হোসেন কে নিজ ক্ষমতা প্রয়োগ করে মিথ্যা অস্ত্র মামলায় ফাসিয়েছিলেন এটা আমি জানি। মূলতঃ ছোট ভাইয়ের সম্পত্তি দখলের জন্য তার ভিটা থেকে গাছ কেটে নিয়েছে। আসাব সাহেব সবসময়ই নিজের ক্ষমতা প্রয়োগ করেন।
নিজের ভিটায় স্বামীর লাগানো ৪’শ গাছ জোরপূর্বক কেটে নেবার ব্যাপারে ভাসুর সাবেক ওসি আসাব হোসেন এর বিরুদ্ধে ৩১ মে নড়াগাতি থানায় এজাহার দায়ের করেন ভাইয়ের স্ত্রী হাসিনা কবীর। যদিও এই অভিযোগ মামলা হিসেবে গ্রহন করেনি নড়াগাতি থানা পুলিশ।

আরও পড়ুন : পরকীয়ায় আসক্ত পুলিশের কান্ড !

নড়াগাতি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রোকসানা খানম জানান, কাটা গাছগুলো আমরা বিক্রি না করার জন্য বলেছি। সেগুলো পুলিশের নজরে রয়েছে। এছাড়া জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধ বিধায় সমঝোতার কথা বলা হয়েছে। সাবেক পুলিশ বলে মামলা নেননি এমন অভিযোগের প্রেক্ষিতে তিনি বলেন, আইন তো সবার জন্য সমান, পুলিশের জন্য আলাদা কোন আইন নাই।

 

© এই নিউজ পোর্টালের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি

ফেসবুকে শেয়ার করুন

More News Of This Category
পরীক্ষামূলক সম্প্রচার
Developed by: A TO Z IT HOST
Tuhin
x