লোহাগড়ায় গরু চুরির অভিযোগে শালিসে ৪ জনকে ২ লাখ টাকা জরিমানা ! লোহাগড়ায় গরু চুরির অভিযোগে শালিসে ৪ জনকে ২ লাখ টাকা জরিমানা ! – Narail news 24.com
শনিবার, ১৩ এপ্রিল ২০২৪, ০৭:৫০ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
সবার সাথে ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি করুন – প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশ পরিচালনায় মসৃণভাবে এগিয়ে যাচ্ছেন – মার্কিন থিঙ্ক-ট্যাঙ্ক জন্মটাই যাদের অগণতান্ত্রিক, সেই বিএনপিই গণতন্ত্রের কথা বলে মন্তব্য পররাষ্ট্রমন্ত্রীর নড়াইলে দুই বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে প্রাণ গেল বাসচলকের, আহত ১৯ লোহাগড়ায় মোটরসাইকেলের জন্য আত্মহত্যা ! কিশোর অপরাধীদের মোকাবেলায় বিশেষ নির্দেশনা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী – মাহবুব হোসেন ব্রাজিল বাংলাদেশ থেকে সরাসরি তৈরি পোশাক আমদানি করতে পারে – প্রধানমন্ত্রী সৌদিতে চাঁদ দেখা যায়নি , বুধবার পবিত্র ঈদুল ফিতর লোহাগড়ায় নদীতে পড়ে নিখোঁজ শিশুর সন্ধান মেলেনি নড়াইলে নিম্ন আয়ের মানুষের মাঝে ইফতার বিতরণ 

লোহাগড়ায় গরু চুরির অভিযোগে শালিসে ৪ জনকে ২ লাখ টাকা জরিমানা !

Reporter Name
  • Update Time : শনিবার, ২২ জানুয়ারী, ২০২২

 স্টাফ রিপোর্টার:

নড়াইলের লোহাগড়ায় গরু চুরির অভিযোগে শালিসী বৈঠকের মাধ্যমে ৪ যুবককে ২লাখ টাকা জরিমানার অভিযোগ উঠেছে। গত শুক্রবার (২১ জানুয়ারী) বিকালে লোহাগড়া উপজেলার নোয়াগ্রাম ইউনিয়নের ৩৩নং হান্দলা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে অন্তত ৭ গ্রামের মানুষের উপস্থিতিতে এ শালিসী বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

শালিসী বৈঠকে নোয়াগ্রাম ইউনিয়নের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান মুন্সী জোসেফ হোসেন, সাবেক চেয়ারম্যান নূরুজ্জামান নূরনবীসহ পাশ^বর্তী ওয়ার্ডের মেম্বর ও স্থানীয় মাতব্বরা উপস্থিত ছিলেন।
এদিকে পুলিশ প্রশাসন ও বিচার বিভাগকে উপেক্ষা করে এ ধরনের শালিসের কোন বৈধতা আছে কিনা তা নিয়ে রীতিমতো সমালোচনার সৃষ্টি হয়েছে।
জানাগেছে, লোহাগড়া উপজেলার হান্দলা গ্রামের মশিউর রহমান ওরফে মইশের একটি গরু চুরি হয় ৪/৫দিন আগে। এই গরু চুরির ঘটনায় হান্দলা গ্রামের খবির উদ্দিনের ছেলে পলাশ (২৪), খলিল ফকিরের ছেলে সাজ্জাদ (২১), হান্দলা খালপাড় এলাকার আশিক ও দেবী গ্রামের মশিয়ারকে অভিযুক্ত করা হয়।
অভিযুক্তদের উপস্থিতিতে শুক্রবার পূর্বনির্ধাতির শালিসী বৈঠক বসে। শালিসী বৈঠক শেষে খবিরের  উদ্দিনের ছেলে পলাশকে ১লাখ টাকা জরিমানা, সাজ্জাদ ও আশিককে ৩৫হাজার টাকা করে এবং মশিয়ারকে ৩০হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। আগামী এব সপ্তাহের মধ্যে টাকা জমা দেয়ার নির্দেশ দেয়া হয়।
এ ব্যাপারে পলাশের পিতা খবির উদ্দিন মুঠোফোনে বলেন,‘ আমার ছেলে অন্যায় করলে অবশ্যই আমি বিচার চাই। তবে বিচারের ক্ষেত্রে অবশ্যই সামঞ্জস্যতা থাকা প্রয়োজন। আমার ছেলেকে ১লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। অন্য তিনজনকে ১লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। সেক্ষেত্রে মনে করি আমার ওপর অবিচার করা হয়েছে।’

নোয়াগ্রাম ইউনিয়নের ৩ নং ওয়ার্ডের সাবেক মেম্বর সালিশে উপস্থিত থাকা জাকির হোসেন সালিশে ২ লাখ টাকা জরিমানার কথা স্বীকার করেন।
শালিসে উপস্থিত নোয়াগ্রাম ইউনিয়ন পরিষদের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান মুন্সী জোসেফ হোসেন জানান, স্থানীয়ভাবে গণ্যমান্য ব্যক্তিদের উপস্থিতিতে মিমাংশা করা হয়েছে। চোরেরা দোষী সাভ্যস্থ হয়েছে। তবে এ বিচারের রায় তারা আপীল করলে পূঃন বিবেচনা করা হতে পারে।’
নড়াইল জজকোর্টের পিপি অ্যাডভোকেট এমদাদুল ইসলাম বলেন,‘ এ ধরনের শালিস করে মোটা অংকের টাকার জরিমানা করার কোন বিধান নেই। চুরি হলে থানা পুলিশ রয়েছে। সেখানে আইনগত ভাবে প্রতিকারের ব্যবস্থা রয়েছে।’

লোহাগড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওস) শেখ আবু হেনা মিলন নড়াইল নিউজ ২৪.কমকে বলেন, শালিস বৈঠকে গ্রাম্য সমস্যা সমাধানের সুযোগ রয়েছে, তবে উভয় পক্ষ শালিশের সিদ্ধান্ত মেনে নিতে হবে। গরু চুরির বিষয়ে কেউ লিখিতভাবে জানায়নি। কেউ ক্ষতিগ্রস্থ হলে এবং এ ব্যাপারে অভিযোগ দিলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে বলেও জানান তিনি।

© এই নিউজ পোর্টালের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি

ফেসবুকে শেয়ার করুন

More News Of This Category
পরীক্ষামূলক সম্প্রচার
Developed by: A TO Z IT HOST
Tuhin
x