বাঘ ৪ মাসে ১০০ কিমি খাল-নদী পাড়ি দিল ! বাঘ ৪ মাসে ১০০ কিমি খাল-নদী পাড়ি দিল ! – Narail news 24.com
বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪, ০৬:৫৩ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
সবুজ বাংলাদেশ গড়তে সারাদেশে সাধ্যমতো গাছ লাগাতে প্রধানমন্ত্রীর আহ্বান সেন্টমার্টিনে মিয়ানমারের গোলাগুলি, প্রয়োজনে জবাব দেয়া হবে – ওবায়দুল কাদের ঈদের ছুটিতে স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিতে অধিদপ্তরের যে নির্দেশনা মানতে হবে অবসরকালীন সময়ে জন্মভূমি মধুমতী পাড়ে আসব – সেনা প্রধান জেনারেল শফিউদ্দিন আহমেদ কালিয়ায় গুলিতে আহত-২, বাড়ীঘর ভাংচুর ও লুটপাটের পাল্টাপাল্টি অভিযোগ বাংলাদেশের বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চলে সংযুক্ত আরব আমিরাতের বিনিয়োগ প্রত্যাশা প্রধানমন্ত্রীর একটি আইএমইআই নম্বরে দেড় লাখ মোবাইল ফোন ! নড়াইলে জমি নিয়ে বিরোধের জেরে একজনকে হত্যার অভিযোগ নড়াইলে সেমিনার অনুষ্ঠিত নড়াইলে সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও ভাইস-চেয়ারম্যনদের দায়িত্ব গ্রহন

বাঘ ৪ মাসে ১০০ কিমি খাল-নদী পাড়ি দিল !

Reporter Name
  • Update Time : বুধবার, ৯ জুন, ২০২১

নড়াইল নিউজ ২৪.কম আন্তর্জাতিক ডেস্ক:

বাঘ যে চাইলে হেঁটে, সাঁতরে অন্তত ১০০ কিলোমিটার পথ অনায়াসে পাড়ি দিতে পারে, সেই প্রমাণ সামনে এল। সুন্দরবনের ভারতীয় অংশ থেকে যাত্রা শুরু করে প্রায় ১০০ কিলোমিটার পেরিয়ে চার মাসের মাথায় সুন্দরবনের বাংলাদেশ অংশে এসেছে একটি রয়েল বেঙ্গল টাইগার। দীর্ঘ যাত্রাপথে ছোট, বড় একাধিক নদী পেরিয়েছে সে। যার মধ্যে কোনোটি এক কিলোমিটার পর্যন্ত চওড়া। 

এমনই তথ্য পাওয়া গেছে ওই বাঘের শরীরে লাগানো রেডিও কলার থেকে। তার দীর্ঘ যাত্রাপথের তথ্য ভারতীয় বন দফতরের হাতে রয়েছে। দেশটির সংবাদ মাধ্যম হিন্দুস্তান টাইমসকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে এমনই জানিয়েছেন পশ্চিমবঙ্গের প্রধান বন-রক্ষক ভি কে যাদব।

২০২০ সালের ডিসেম্বর মাসে এই রয়েল বেঙ্গল টাইগারের গলায় রেডিও কলার লাগানো হয়েছিল। রাজ্য বন দফতরের ওই শীর্ষ কর্মকর্তা জানিয়েছেন, চার মাসের যাত্রাপথে একবারের জন্যও কোনো জনবসতির দিকে যায়নি বাঘটি।

ভি কে যাদব জানান, ‘যাত্রা শুরুর পর প্রথম এক মাস বাঘটি ভারতীয় এলাকাতেই ছিল। এরপর বাঘটি বাংলাদেশের তালপট্টি দ্বীপে আসে। একে একে ছোট হাড়িখালি, বড় হাড়িখালি পেরিয়ে রায়মঙ্গলের মতো নদী পেরিয়ে যায় বাঘটি।’

বন দফতরের ওই শীর্ষ কর্মকর্তার মতে, রেডিও কলার লাগানোর আগে বাঘটি সম্ভবত সুন্দরবনের বাংলাদেশ অংশ থেকেই ভারতীয় এলাকায় ঢুকেছিল। এবার নিজের পুরনো বাসস্থানেই ফিরে গেছে বাঘটি।

ইন্ডিয়ান ফরেস্ট সার্ভিসের অফিসার পারভীন কাসওয়ান গত বছর রেডিও কলার লাগানোর পর এই বাঘটির ছবিই টুইটারে পোস্ট করেছিলেন। বাঘটিরই বাংলাদেশে পৌঁছানোর খবরও জানান তিনি।

কাসওয়ান টুইটারে লেখেন, ‘এই বাঘটি ১০০ কিলোমিটার পথ অতিক্রম করে ভারত থেকে বাংলাদেশে গেছে। অবশ্যই ভিসা ছাড়া! খাঁড়ি, দ্বীপ, সমুদ্র- যাত্রাপথে সবই অতিক্রম করেছে।’

টাইমস অফ ইন্ডিয়াকে ভি কে যাদব জানিয়েছেন, ২৭ ডিসেম্বর থেকে ১১ মের মধ্যে বাঘটি ভারতীয় এলাকায় সুন্দরবনের হরিণভাঙা ও খাটুয়াঝুড়ি এবং বাংলাদেশের তালপট্টি নামে তিনটি দ্বীপের মধ্যেই অবস্থান করছিল। যদিও ১১ মে-র পর বাঘটির শরীরে থাকা রেডিও কলার থেকে সিগন্যাল আসা বন্ধ হয়ে যায়। বাঘটির সর্বশেষ অবস্থান অনুযায়ী সেটি বাংলাদেশের তালপট্টি দ্বীপে ছিল।

ভি কে যাদব জানিয়েছেন, কোনোভাবে বাঘটির মৃত্যু হলেও রেডিও কলার থেকে সংকেত আসার কথা। কিন্তু ওই ধরনের কোনো সংকেত আসেনি। আবার বাঘটি নিরাপদে থাকলেও যে সিগন্যাল পাওয়ার কথা, তা আসাও বন্ধ। ফলে বন দফতরের কর্মকর্তারা ধরেই নিয়েছেন, সম্ভবত বাঘটির গলা থেকে রেডিও কলারটি খুলে পড়ে গেছে।

© এই নিউজ পোর্টালের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি

ফেসবুকে শেয়ার করুন

More News Of This Category
পরীক্ষামূলক সম্প্রচার
Developed by: A TO Z IT HOST
Tuhin
x