প্রবৃদ্ধিতে বিশ্বে দ্বিতীয় ভারত, সামনে শুধু চীন ! প্রবৃদ্ধিতে বিশ্বে দ্বিতীয় ভারত, সামনে শুধু চীন ! – Narail news 24.com
বুধবার, ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১০:৩৪ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
একুশ মাথা নত না করতে শেখায় – প্রধানমন্ত্রী স্পেনের বিনিয়োগকারীদের বাংলাদেশের বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চলে বিনিয়োগের আহ্বান রাষ্ট্রপতির নড়াইল ও লোহাগড়ায় সেনাপ্রধান জেনারেল শফিউদ্দিন আহমেদ এর ব্যস্ত সময় পার শান্তিপূর্ণ কর্মসূচিতে বাধা দেবে না সরকার – ওবায়দুল কাদের সয়াবিন তেলের দাম লিটারে কমলো ১০ টাকা নড়াইলে মাদকাসক্তি প্রতিরোধ ও সচেতনতা বৃদ্ধিতে সভা অনুষ্ঠিত লোহাগড়ায় প্রতিপক্ষের হামলায় বৃদ্ধ’র ডান হাত ও ডান পা বিচ্ছিন্ন, ঢাকায় প্রেরণ মিউনিখ নিরাপত্তা সম্মেলনে যোগদান শেষে দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী মিউনিখ সম্মেলনে শেখ হাসিনাকে নিমন্ত্রণ বাংলাদেশের গুরুত্বকেই তুলে ধরে – কাদের রেজিস্ট্রেশনযোগ্য জিআই পণ্যের তালিকা দাখিলের নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট

প্রবৃদ্ধিতে বিশ্বে দ্বিতীয় ভারত, সামনে শুধু চীন !

Reporter Name
  • Update Time : বৃহস্পতিবার, ১০ জুন, ২০২১

নড়াইল নিউজ ২৪.কম আন্তর্জাতিক ডেস্ক:

করোনা মহামারির মধ্যেই অর্থনৈতিক অগ্রগতি হয়েছে ভারতের। বিশ্ব ব্যাংকের তথ্য বলছে, বড় অর্থনীতির দেশ হিসেবে দ্রুত অর্থনৈতিক সমৃদ্ধির দিক দিয়ে দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে ভারত। দেশটির সামনে রয়েছে শুধু চীন।

বিশ্ব ব্যাংকের হিসাব অনুযায়ী, চলতি অর্থবছরে ভারতের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি হতে চলেছে ৮.৩ শতাংশ। চীনের সঙ্গে ব্যবধান মাত্র ০.২ শতাংশের। চলতি বছরের জানুয়ারি মাসে বিশ্ব ব্যাংকের করা সমীক্ষা অনুযায়ী, ভারতের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধির সম্ভাব্য হিসাব ছিল ৫.৪ শতাংশ, যা বর্তমান হিসাবের চেয়ে ২.৯ শতাংশ কম। যদিও চলতি বছরের এপ্রিল মাসে বিশ্ব ব্যাংক যে সমীক্ষা দিয়েছিল, তাতে ভারতের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধির সম্ভাবনা ছিল ১০.১ শতাংশ, যা বর্তমান সমীক্ষার চেয়ে প্রায় ১.৭ শতাংশ বেশি। সব মিলিয়ে করোনা পরবর্তী অর্থনৈতিক পরিস্থিতিতে ভারত চালকের আসনে থাকবে- এমনটাই মনে করা হচ্ছে।

বিশ্ব ব্যাংক ভারতের করোনা পরবর্তী অর্থনৈতিক পরিস্থিতির ভূয়সী প্রশংসা করেছে। তাদের মতে, ভারতের অর্থনীতির প্রবৃদ্ধির সম্ভাব্য কারণ হিসেবে উন্নত পরিকাঠামোয় বিনিয়োগ, সঠিক পরিকল্পনা, গ্রামীণ উন্নয়ন ও স্বাস্থ্য পরিষেবায় উন্নতি- এই চারটি বিষয়কে বিবেচনায় নেওয়া যেতে পারে। ভারতের পাশাপাশি দ্রুত অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি হতে চলেছে ভুটান এবং বাংলাদেশেরও। দুই দেশেরই সম্ভাব্য অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি ৫ শতাংশ। তবে বেহাল দশা পাকিস্তানের। তাদের সম্ভাব্য প্রবৃদ্ধি মাত্র ২ শতাংশ।

দক্ষিণ এশিয়া ও বিশ্বের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি নিয়েও পূর্বাভাস দিয়েছে বিশ্ব ব্যাংক। তারা বলছে, করোনা পরবর্তীতে বিশ্বকে অর্থনৈতিকভাবে স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে আসতে আরও ৮০ বছর লাগবে। এই অর্থবছরে সম্ভাব্য প্রবৃদ্ধি ৫.৬ শতাংশ। তবে এই সংখ্যায় খানিক ধাক্কা লাগতে চলেছে আগামী অর্থবছরে। আগামী অর্থবছরে সম্ভাব্য অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি ৪.৩ শতাংশ। ২০২৩ সালে সার্বিক প্রবৃদ্ধির সম্ভাবনা ৩.১ শতাংশ। দক্ষিণ এশিয়ার ক্ষেত্রে এই বৃদ্ধির পরিমাণ চলতি অর্থবছরে ৬.৮ শতাংশ।

দীর্ঘদিন পর অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধিতে ভারতের এতটা এগিয়ে থাকা জনমানুষের মধ্যে খানিক আশার আলো আনবে বলে মনে করছেন অর্থনীতিবিদরা।

© এই নিউজ পোর্টালের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি

ফেসবুকে শেয়ার করুন

More News Of This Category
পরীক্ষামূলক সম্প্রচার
Developed by: A TO Z IT HOST
Tuhin
x