প্রবৃদ্ধিতে বিশ্বে দ্বিতীয় ভারত, সামনে শুধু চীন ! প্রবৃদ্ধিতে বিশ্বে দ্বিতীয় ভারত, সামনে শুধু চীন ! – Narail news 24.com
রবিবার, ২৬ মে ২০২৪, ০২:০৫ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
নড়াইলে তীব্র তাপদাহে পথচারীদের মাঝে শরবত বিতরণ ধেয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড় রেমাল : পায়রা-মোংলায় ৭ নম্বর বিপদ সংকেত ঢাকাবাসীকে সুন্দর জীবন উপহার দিতে কাজ করছে সরকার – প্রধানমন্ত্রী ঘূর্ণিঝড় রেমালের মোকাবেলায় প্রস্তুত রয়েছে সরকার – দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী কোন দলের নেতাকর্মীকে জেলে পাঠানোর এজেন্ডা আমাদের নেই – ওবায়দুল কাদের ঘূর্ণিঝড় রেমাল মোকাবিলায় ফায়ার সার্ভিসের ছুটি বাতিল, মনিরটিং সেল গঠন নড়াইলে দুই মাদক ব্যাবসায়ীর যাবজ্জীবন কারাদণ্ড কংগ্রেসম্যানদের সই জালকারী বিএনপি একটি জালিয়াত রাজনৈতিক দল মন্তব্য পররাষ্ট্রমন্ত্রীর প্রধানমন্ত্রী শ্রমিকদের জন্য সব কিছু করে যাচ্ছেন – বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী জুজুৎসুর নিউটনের ‘ভয়ংকর’ যৌন নিপীড়নের তথ্য জানালো র‍্যাব

প্রবৃদ্ধিতে বিশ্বে দ্বিতীয় ভারত, সামনে শুধু চীন !

Reporter Name
  • Update Time : বৃহস্পতিবার, ১০ জুন, ২০২১

নড়াইল নিউজ ২৪.কম আন্তর্জাতিক ডেস্ক:

করোনা মহামারির মধ্যেই অর্থনৈতিক অগ্রগতি হয়েছে ভারতের। বিশ্ব ব্যাংকের তথ্য বলছে, বড় অর্থনীতির দেশ হিসেবে দ্রুত অর্থনৈতিক সমৃদ্ধির দিক দিয়ে দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে ভারত। দেশটির সামনে রয়েছে শুধু চীন।

বিশ্ব ব্যাংকের হিসাব অনুযায়ী, চলতি অর্থবছরে ভারতের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি হতে চলেছে ৮.৩ শতাংশ। চীনের সঙ্গে ব্যবধান মাত্র ০.২ শতাংশের। চলতি বছরের জানুয়ারি মাসে বিশ্ব ব্যাংকের করা সমীক্ষা অনুযায়ী, ভারতের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধির সম্ভাব্য হিসাব ছিল ৫.৪ শতাংশ, যা বর্তমান হিসাবের চেয়ে ২.৯ শতাংশ কম। যদিও চলতি বছরের এপ্রিল মাসে বিশ্ব ব্যাংক যে সমীক্ষা দিয়েছিল, তাতে ভারতের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধির সম্ভাবনা ছিল ১০.১ শতাংশ, যা বর্তমান সমীক্ষার চেয়ে প্রায় ১.৭ শতাংশ বেশি। সব মিলিয়ে করোনা পরবর্তী অর্থনৈতিক পরিস্থিতিতে ভারত চালকের আসনে থাকবে- এমনটাই মনে করা হচ্ছে।

বিশ্ব ব্যাংক ভারতের করোনা পরবর্তী অর্থনৈতিক পরিস্থিতির ভূয়সী প্রশংসা করেছে। তাদের মতে, ভারতের অর্থনীতির প্রবৃদ্ধির সম্ভাব্য কারণ হিসেবে উন্নত পরিকাঠামোয় বিনিয়োগ, সঠিক পরিকল্পনা, গ্রামীণ উন্নয়ন ও স্বাস্থ্য পরিষেবায় উন্নতি- এই চারটি বিষয়কে বিবেচনায় নেওয়া যেতে পারে। ভারতের পাশাপাশি দ্রুত অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি হতে চলেছে ভুটান এবং বাংলাদেশেরও। দুই দেশেরই সম্ভাব্য অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি ৫ শতাংশ। তবে বেহাল দশা পাকিস্তানের। তাদের সম্ভাব্য প্রবৃদ্ধি মাত্র ২ শতাংশ।

দক্ষিণ এশিয়া ও বিশ্বের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি নিয়েও পূর্বাভাস দিয়েছে বিশ্ব ব্যাংক। তারা বলছে, করোনা পরবর্তীতে বিশ্বকে অর্থনৈতিকভাবে স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে আসতে আরও ৮০ বছর লাগবে। এই অর্থবছরে সম্ভাব্য প্রবৃদ্ধি ৫.৬ শতাংশ। তবে এই সংখ্যায় খানিক ধাক্কা লাগতে চলেছে আগামী অর্থবছরে। আগামী অর্থবছরে সম্ভাব্য অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি ৪.৩ শতাংশ। ২০২৩ সালে সার্বিক প্রবৃদ্ধির সম্ভাবনা ৩.১ শতাংশ। দক্ষিণ এশিয়ার ক্ষেত্রে এই বৃদ্ধির পরিমাণ চলতি অর্থবছরে ৬.৮ শতাংশ।

দীর্ঘদিন পর অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধিতে ভারতের এতটা এগিয়ে থাকা জনমানুষের মধ্যে খানিক আশার আলো আনবে বলে মনে করছেন অর্থনীতিবিদরা।

© এই নিউজ পোর্টালের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি

ফেসবুকে শেয়ার করুন

More News Of This Category
পরীক্ষামূলক সম্প্রচার
Developed by: A TO Z IT HOST
Tuhin
x