নড়াইলে এমপি মাশরাফির বিরুদ্ধে বিষোদগারের অভিযোগ নড়াইলে এমপি মাশরাফির বিরুদ্ধে বিষোদগারের অভিযোগ – Narail news 24.com
বুধবার, ২৪ এপ্রিল ২০২৪, ০৫:৪৫ পূর্বাহ্ন

নড়াইলে এমপি মাশরাফির বিরুদ্ধে বিষোদগারের অভিযোগ

Reporter Name
  • Update Time : বুধবার, ২৯ নভেম্বর, ২০২৩
মাশরাফি বিন মর্তুজা। ফাইল ছবি

স্টাফ রিপোর্টার, নড়াইল

নড়াইল-২ আসন থেকে আওয়ামীলীগের মনোনয়ন প্রপ্ত বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের যুব ও ক্রীড়া সম্পাদক মাশরাফি বিন মর্তুজা এমপির বিরুদ্ধে নির্লজ্জ মিথ্যাচার এবং প্রতিহিংসা মূলক হয়ে সংবাদ সম্মেলন করেছেন জেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক নিজাম উদ্দিন খান নিলু বলে অভিযোগ করেছেন জেলা আওয়ামীলীগের সদস্য মোঃ হাফিজ খান মিলন।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকের ব্যক্তিগত আইডিতে বুধবার রাতে তিনি এ সংক্রান্ত একটি স্টাটাস দেন। নড়াইল নিউজ ২৪.কম এর পাঠকদের জন্য মোঃ হাফিজ খান মিলনের লেখাটি হুবহু তুলে ধরা হলো:

ফেসবুকের ব্যক্তিগত আইডিতে মোঃ হাফিজ খান মিলন লিখেছেন, আসলামুআলাইকুম, আমি মোঃ হাফিজ খান মিলন,সদস্য জেলা আওয়ামী লীগ নড়াইল।

আজ সন্ধ্যায় জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জনাব নিজাম উদ্দিন খান নিলুর একটি সংবাদ সম্মেলন দেখে আমি বিস্মিত,হতবাক এবং হতাশ হয়েছি কারণ তার উপস্থাপনা টা ছিল নির্লজ্জ মিথ্যাচার এবং প্রতিহিংসা মূলক।

আরও পড়ুন: নড়াইলের দুইটি আসন থেকে ১৭ জনের মনোনয়ন সংগ্রহ

সর্ব প্রথমেই আপনি বলেছিলেন প্রতি হিংসা নয় দলের ভিতরে প্রতিযোগিতা থাকতেই পারে কিন্তু আপনার পূর্ণাঙ্গ উপস্থাপনা টা ছিল চরম প্রতিহিংসা মূলক। জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হিসেবে বঙ্গবন্ধু কন্যা নিজে যখন কোন সংসদীয় আসনে কাউকে মনোনীত করেন তখন আর কি নির্দেশনার জন্য আপনি অপেক্ষা করেন এটা আমাদের বোধগম্য নয়। উপরন্ত আমরা যারা জেলা আওয়ামীলীগের নির্বাহী কমিটিতে আছি তারা দায়িত্ব নিয়েই এই কথাটি বলছি যে জেলা আওয়ামী লীগের সংগ্রামী সভাপতি জনাব সুভাষ চন্দ্র বোস মাননীয় সভানেত্রী আমাদের সংসদীয় আসনে মনোনয়ন নিশ্চিত করবার পরই আপনার নিকট বারবার অনুরোধ করেছেন জেলা আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী কমিটির একটি মিটিং আহ্বান করবার জন্য কিন্তু আপনি সেটাই অনীহা প্রকাশ করেছেন, জেলা সভাপতি যদিও নিজের নির্বাহী ক্ষমতায় ২৪ ঘন্টার নোটিশে মিটিং আহ্বান করবার সাংগঠনিক ক্ষমতা রাখেন তারপরও আপনাকে নিয়েই এই মিটিংটি সম্পাদন করবার জন্য তিনি অপেক্ষা করছেন।

হাফিজ খান মিলনের ফেসবুকে লেখা।
ছবি: নড়াইল নিউজ ২৪.কম

জেলা আওয়ামীলীগের সাবেক বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক এই সম্পাদক লিখেছেন, একই সাথে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুবক ক্রীড়া সম্পাদক আমাদের এই সিটের বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ মনোনীত সংসদ সদস্য প্রার্থী জনাব মাশরাফি বিন মোর্তজা মনোনয়ন প্রাপ্ত হয়ে আপনার সাথে কয়েকবার টেলিফোনে কথা বলেছেন এবং তিনি যেহেতু দলের মনোনীত প্রার্থী সেহেতু সংগঠনের নেতৃত্বেই তিনি এই নির্বাচনে অংশগ্রহণ করতে চান বলে আপনাকে জানিয়েছেন। কিন্তু আপনি বারংবার জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এবং দল মনোনীত প্রার্থীকে প্রত্যাখ্যান করেছেন।
তারপরও আপনার যদি কোন অভিযোগ বা আবেগ থেকে থাকে আপনি সেটা দলীয় প্ল্যাটফর্মে মিটিং না ডেকে সংবাদ সম্মেলন করে দলের শৃঙ্খলা আপনি নিজেই ভঙ্গ করেছেন।

আরও পড়ুন: নড়াইল-২ আসনে মাশরাফীর পক্ষে একট্টা- লোহাগড়া উপজেলা আ’লীগ

এটা আপনার জন্য নতুন কিছু নয় বিগত সময়ে আপনি নড়াইল এক ও দুই সংসদীয় আসনের সংসদ সদস্যের বিরুদ্ধে বারবার প্রকাশ্যে জনসভায় বিষোদগার করেছেন এবং সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক হিসেবে আপনার প্রতি যে দায়িত্ব মাননীয় সভানেত্রী অর্পিত করেছেন তার সাথে বিশ্বাসঘাতকতা করেছেন।

হাফিজ খান মিলন আরও লিখেছেন, মাশরাফি বিন মোর্তুজা মনোনয়ন প্রাপ্ত হওয়ার পর তার নির্বাচন এলাকার ২০টি ইউনিয়ন পরিষদ, দুইটি পৌরসভা এবং দুইটি উপজেলা পরিষদ এলাকার সর্বস্তরের মানুষ তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় যে আনন্দ উল্লাস ও অভিবাদন জানিয়েছেন আপনি সেটা নিয়েও বিসাদগার করেছেন।
অভিযোগ করেছেন আপনার বাড়ির সামনের রাস্তায় আতশবাজি ফোটানো হয়েছে, আপনার কাছে আমার একটি প্রশ্ন মাশরাফি বিন মোর্তজার নির্বাচনী এলাকায় এমন কোন রাস্তা, বাজার, গ্রাম, সড়ক মোড় নাই যেখানে দলীয় নেতা কর্মীসহ সর্বস্তরের মানুষ তাকে সাদরে অভিবাদন জানায় নাই। দয়া করে প্রশ্নটি এড়িয়ে যাবেন না সততার সাথে উত্তর দিবেন।

আপনি নিজেই দলের সাধারণ সম্পাদক হিসেবে সংগঠনের শৃঙ্খলা ভঙ্গ করেছেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের অফিসিয়াল মনোনয়ন ঘোষণা হয়েছে বিগত ২৬ নভেম্বর কিন্তু বিগত ২৩ এবং ২৪ নভেম্বর রূপগঞ্জ বাজার মুজিপোল চত্বরে আপনার কতিপায়ী অনুসারী দিয়ে অসংখ্য আতশবাজি ফুটিয়ে দলের সভানেত্রীর সিদ্ধান্তকে অবমাননা করেছেন।

জেলা ছাত্রলীগের সাবেক এই সভাপতি লিখেছেন, জেলা যুবলীগ, জেলা ছাত্রলীগ, জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগ জেলা মৎস্যজীবী লীগ, জেলা কৃষক লীগ, জেলা মহিলা আওয়ামী লীগ ও জেলা যুব মহিলা লীগ এর আয়োজনে মাননীয় নেত্রীকে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানিয়ে মাশরাফি বিন মোর্তুজার মনোলায়ন কে স্বাগত জানিয়ে যে কর্মসূচি, আপনার নির্লজ্জ মিথ্যাচারে আপনি সেখানে মাশরাফি বিন মোর্তজার পিতা একজন নির্ভেজাল সাদা মনের মানুষ জনাব স্বপন মোর্তজাকে নিয়েও মিথ্যাচার করলেন। সত্যিই আপনার অকৃতজ্ঞতাবোধ দেখে আমরা হতবাক হয়েছি।

প্রথমবার জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মনিরুলের কাছে হেরে দ্বিতীয়বার আপনার প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীর কাছে মাত্র ৩৩০০ ভোটে জিতে আপনি যে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান হয়েছেন সেটার জন্য হলেও আপনার এই মানুষটিকে নিয়ে মিথ্যাচার করবার আগে কৃতজ্ঞতা বোধ থাকা উচিত ছিল।

একটি প্রশ্ন
আপনি জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক
কার কাছে আপনি প্রশ্ন করবেন যে আমাকে ডাকা হয় নাই
বঙ্গবন্ধু কন্যা দেশরত্ন শেখ হাসিনা আপনাকে জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব দিয়েছেন তার নির্দেশনা অন্যকে জানাবার জন্য, মাননীয় নেত্রী মনোনয়ন নিশ্চিত করবার পরই আপনি কেন সংগঠনের মিটিং ডেকে পরবর্তী কর্মসূচি নির্ধারণ করেন নাই।

আগামীকাল ৩০ নভেম্বর মনোনয়নপত্র দাখিল হবে আপনার প্রতি উদাত্ত আহবান রইল আপনি আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হিসাবে সংগঠনের সভাপতি এর সাথে একসাথে দলীয় মনোনয়নপত্র জমা দিন।

আর দলের বিরুদ্ধে একের পর এক প্রার্থী দাঁড় করবার যে নীলকুঠির বৈঠক করছেন সেটা থেকে নিভৃত থাকুন ‌।

অন্যথায় প্রকৃতি কাউকে ক্ষমা করে না, আপনার পরিণতির জন্য আপনি দায়ী থাকবেন।

আরও পড়ুন: নড়াইল-১ আসন: স্বামী পেলেন নৌকা, স্ত্রী সংগ্রহ করলেন স্বতন্ত্র প্রার্থীর মনোনয়ন !

উল্লেখ্য, বুধবার বিকালে নিজ বাসভবনে কিছু গণমাধ্যম কর্মি ডেকে নিয়ে বিভিন্ন অভিযোগ করেন সংসদ সদস্য মাশরাফি বিন মর্তুজা ও তার পিতা গোলাম মর্তুজা স্বপনসহ তার সমর্থকদের বিরুদ্ধে।
জেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক ও সদর উপজেলা চেয়ারম্যান নিজাম উদ্দিন খান নিলু নড়াইল-১ ও ২ আসন থেকে আওয়ামীলীগের দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশী ছিলেন।

© এই নিউজ পোর্টালের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি

ফেসবুকে শেয়ার করুন

More News Of This Category
পরীক্ষামূলক সম্প্রচার
Developed by: A TO Z IT HOST
Tuhin
x