থানায় নারীর শ্লীলতাহানি করলেন এসআই! থানায় নারীর শ্লীলতাহানি করলেন এসআই! – Narail news 24.com
মঙ্গলবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৮:৩৮ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
নির্বাচনে না আসার খেসারত বিএনপিকে দিতে হবে মন্তব্য ওবায়দুল কাদেরের সরকারকে উৎখাত করার ষড়যন্ত্রে বিডিআর বিদ্রোহ ঘটানো হয়েছিল – পররাষ্ট্রমন্ত্রী জাতিসংঘ বাংলাদেশে জলবায়ু কর্মকান্ডে অর্থায়নের প্রতিশ্রুতি দিয়েছে – পরিবেশ মন্ত্রী নড়াইলে বীরশ্রেষ্ঠ নূর মোহাম্মদ শেখের জন্মবার্ষিকী পালিত নড়াগাতীতে ২৪ কেজি গাঁজাসহ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার স্থানীয় সরকার প্রতিনিধিদের সন্ত্রাস ও দুর্নীতির বিরুদ্ধে কাজ করার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর সম্পর্কের নতুন অধ্যায়ে যেতে চায় বাংলাদেশ-যুক্তরাষ্ট্র কেন্দ্রীয় ঔষধাগারে ঝটিকা অভিযানে অনিয়ম দেখলেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী শিক্ষার্থীরা জাপানসহ অন্যান্য দেশে কর্মসংস্থানের সুযোগ পাবে – জাপানের রাষ্ট্রদূত লোহাগড়ার মেধাবী ছাত্র এহসানুল কবির অর্ক এর অনন্য কীর্তি

থানায় নারীর শ্লীলতাহানি করলেন এসআই!

Reporter Name
  • Update Time : মঙ্গলবার, ১ জুন, ২০২১
অভিযুক্ত এসআই আসাদুল ইসলাম

নারীকে থানায় ডেকে শ্লীলতাহানির অভিযোগে বরিশাল কোতোয়ালি মডেল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আসাদুল ইসলামের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে। গত ২৪ মে নারী ও শিশু নির্যাতন অপরাধ দমন ট্রাইবুনালে মামলাটি দায়ের করা হলেও সোমবার তা জানাজানি হয়। মামলাটি আমলে নিয়ে বিচারক পিবিআইকে নির্দেশ তদন্তের নির্দেশ দেন। ঘটনাটি ঘটেছে গত বছর ২৮ সেপ্টেম্বর।

ওই সময় এ ঘটনা তদন্তে ব্যবস্থা গ্রহণের আশ্বাস দেয়া হলেও থানা থেকে কোনো ধরনের পদক্ষেপ না নেয়ায় ওই নারী আদালতের শরণাপন্ন হন।

মামলার এজাহার সূত্র থেকে জানা গেছে, গত বছরের ২৭ সেপ্টেম্বর কোতোয়ালী মডেল থানায় প্রতিবেশী যুবকের বিরুদ্ধে জমিজমা সংক্রান্ত বিষয়ে সাধারণ ডায়েরি করেন ওই নারী। ২৮ সেপ্টেম্বর তদন্তের জন্য নারীকে থানায় ডেকে নিজের কক্ষে বসতে দেন অভিযুক্ত এসআই আসাদ। অভিযোগের বিষয়ে আলাপকালে আকস্মিক ওই নারীর শ্লীলতাহানি করেন আসাদ। এর মধ্যে সেখানে আসেন নারীর স্বামী।

বিষয়টি থানার ওসি নুরুল ইসলামের নিকট অভিযোগ দিলে নারী পুলিশ কর্মকর্তা (এএসআই) রুমা পারভীনকে দিয়ে তদন্ত করার আশ্বাস দেন। একই সাথে তদন্তে তার বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ প্রমাণিত হলে প্রশাসনিক ব্যবস্থা নেয়ারও কথা দেন ওসি।

ওই নারী বলেন, ঘটনার দীর্ঘদিন পেরিয়ে গেলেও তদন্তের বিষয়ে তাকে কিছুই জানানো হয়নি। এ কারণে সর্বশেষ ২৪ মে খবর নেন এসআই আসাদের বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে কি না। তখন তিনি জানতে পারেন কোন তদন্তই করা হয়নি। রাগে-ক্ষোভে ওই দিনই আদালতে মামলা দায়ের করেন।

এ ব্যাপারে কোতোয়ালী মডেল থানার ওসি নুরুল ইসলাম বলেন, ওই নারীর লিখিত অভিযোগ পাওয়ার পর তদন্ত করে প্রতিবেদন দেয়া হয়েছে। কিন্তু প্রতিবেদন অভিযোগকারীর মন মতো না হওয়ায় তিনি মিথ্যা অভিযোগ করছেন।

তবে সোমবার পর্যন্ত আদালতের নির্দেশের কপি পিবিআই’র পুলিশ সুপার কার্যালয়ে পৌঁছায়নি বলে নিশ্চিত করেছেন সেখানকার পুলিশ সুপার হুমায়ুন কবির। কপি হাতে পাওয়ার সাথে সাথে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে জানান এ কর্মকর্তা।

© এই নিউজ পোর্টালের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি

ফেসবুকে শেয়ার করুন

More News Of This Category
পরীক্ষামূলক সম্প্রচার
Developed by: A TO Z IT HOST
Tuhin
x