তাকে ‘মিথ্যা ফখরুল’ বলতে চাই না – তথ্যমন্ত্রী তাকে ‘মিথ্যা ফখরুল’ বলতে চাই না – তথ্যমন্ত্রী – Narail news 24.com
বুধবার, ২৪ জুলাই ২০২৪, ০৬:৩২ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
নড়াইলে বিনামূল্যে স্বাস্থ্যসেবা সহায়তা প্রদান   নড়াইলে দলিত জনগোষ্ঠীর অধিকার আদায়ের লক্ষ্যে ইউনিয়ন পরিষদের সাথে গণশুনানি অনুষ্ঠিত বাংলাদেশের উন্নয়নে চীনের সমর্থন অব্যাহত রাখার আশ্বাস দিলেন শি জিনপিং ঢাকা-বেইজিং ২১টি দলিল সই এবং দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক উন্নত করতে ৭টি প্রকল্প ঘোষণা প্রশ্নফাঁসে জড়িত সেই ৫ জনের বিরুদ্ধে তদন্ত করতে দুদকে চিঠি দিলো পিএসসি নড়াইলে জাতীয় কাবাডি চ্যাম্পিয়ানশীপের ফাইনাল খেলা অনুষ্টিত ভারতের সাথে দেশ বিরোধী চুক্তি বাতিল,দুর্নীতিবাজদের গ্রেপ্তার ও শাস্তির দাবিতে বিক্ষোভ সম্ভাব্য বন্যা মোকাবিলায় সংশ্লিষ্ট সকলকে প্রস্তুতি গ্রহণের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর সরকারি কর্মচারিদের সম্পদের হিসাব দাখিলের নির্দেশ হাইকোর্টের পেনশন স্কিম প্রত্যয়-এর প্রাসঙ্গিক বিষয়ে জাতীয় পেনশন কর্তৃপক্ষের ব্যাখ্যা

তাকে ‘মিথ্যা ফখরুল’ বলতে চাই না – তথ্যমন্ত্রী

Reporter Name
  • Update Time : বৃহস্পতিবার, ১০ জুন, ২০২১

 নড়াইল নিউজ ২৪.কম  বিনোদন ডেস্ক:

কারো নাম বিকৃত করে উচ্চারণ করা ভদ্রলোকের কাজ নয়। মানুষের নাম বিকৃত করে বলা অনুচিত। মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরকে তো ভদ্রলোক বলে জানতাম। তিনি কেন হঠাৎ করে এভাবে নাম বিকৃত করে বলা শুরু করলেন বুঝতে পারছি না। 

বৃহস্পতিবার (১০ জুন) দুপুরে সচিবালয়ে অভিনয়শিল্পী ও মডেলদের সঙ্গে সাক্ষাৎ শেষে এসব কথা বলেন তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। গতকাল বিকেলে মির্জা ফখরুল তথ্যমন্ত্রীর নাম বিকৃত করে ‘হাছা মাহমুদ’ বলেছিলেন। বিষয়টি নিয়ে সাংবাদিকরা দৃষ্টি আকর্ষণ করলে এ জবাব দেন মন্ত্রী।

মির্জা ফখরুল সম্পর্কে হাছান মাহমুদ বলেন, সম্ভবত তারা তাদের রাজনীতি নিয়ে প্রচণ্ড হতাশ। সে হতাশা থেকে কখন কী বলে বলে বসছেন! আমি মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর সাহেব সম্পর্কে বেশি কিছু বলতে চাচ্ছি না।

তিনি বলেন, মির্জা ফখরুলকে তো অনেকেই ‘মিথ্যা ফখরুল’ বলেন। অনেকেই বলেন, তিনি প্রচণ্ড মিথ্যা কথা বলেন, অবলীলায় সুন্দরভাবে মিথ্যা কথা বলেন। এজন্যই অনেকে ‘মিথ্যা ফখরুল’ বলেন। আমি এটা বলতে চাই না। কারণ এটা বলা সমীচীন নয়। মানুষে বললেও আমি সেটা বলতে চাই না।

মন্ত্রী বলেন, ফখরুল সাহেব বলেছেন, গণঅভ্যুত্থানের মাধ্যমে সরকারকে ক্ষমতা থেকে সরাবেন। এ রকম হুমকি তো আমরা গত ১২ বছর ধরে শুনে আসছি। হুমকি দিতে দিতে তারা ছোট হয়ে আসছেন। তাদের আঙিনা ক্রমাগত ছোট হয়ে যাচ্ছে। এটা তাদের জন্য দুঃখজনক।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন অভিনয় শিল্পী সংঘের সভাপতি শহিদুজ্জামান সেলিম, অভিনেত্রী তারিন, সুইটি, অনিক এবং চলচ্চিত্র শিল্পী ফোরামের সভাপতি মিশা সওদাগর, সেক্রেটারি জায়েদ খান প্রমুখ।

© এই নিউজ পোর্টালের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি

ফেসবুকে শেয়ার করুন

More News Of This Category
পরীক্ষামূলক সম্প্রচার
Developed by: A TO Z IT HOST
Tuhin
x