জমি লিজ দিয়ে বিপাকে মালিক জমি লিজ দিয়ে বিপাকে মালিক – Narail news 24.com
বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪, ০৮:০৪ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
সবার সাথে ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি করুন – প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশ পরিচালনায় মসৃণভাবে এগিয়ে যাচ্ছেন – মার্কিন থিঙ্ক-ট্যাঙ্ক জন্মটাই যাদের অগণতান্ত্রিক, সেই বিএনপিই গণতন্ত্রের কথা বলে মন্তব্য পররাষ্ট্রমন্ত্রীর নড়াইলে দুই বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে প্রাণ গেল বাসচলকের, আহত ১৯ লোহাগড়ায় মোটরসাইকেলের জন্য আত্মহত্যা ! কিশোর অপরাধীদের মোকাবেলায় বিশেষ নির্দেশনা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী – মাহবুব হোসেন ব্রাজিল বাংলাদেশ থেকে সরাসরি তৈরি পোশাক আমদানি করতে পারে – প্রধানমন্ত্রী সৌদিতে চাঁদ দেখা যায়নি , বুধবার পবিত্র ঈদুল ফিতর লোহাগড়ায় নদীতে পড়ে নিখোঁজ শিশুর সন্ধান মেলেনি নড়াইলে নিম্ন আয়ের মানুষের মাঝে ইফতার বিতরণ 

জমি লিজ দিয়ে বিপাকে মালিক

Reporter Name
  • Update Time : বুধবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী, ২০২২
ছবি:- নড়াইল নিউজ ২৪.কম

স্টাফ রিপোর্টার:

ইটভাটা তৈরীর জন্য জমি লিজ দিয়েছিলেন জমির মালিক জামাল হোসেন। জমি লিজ দিয়ে বিপাকে পড়েছেন তিনি এখন জমিও ছাড়ছে না লিজের টাকাও দিচ্ছে না বলে সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ করেন তিনি।
জমি লিজের পাওনা টাকা আদায় এবং জমি উদ্ধারের দাবিতে বাধ্য হয়ে সংবাদ সম্মেলন করেছেন ভূক্তভোগী জমির মালিক জামাল হোসেন।
জেলার কালিয়া পৌরসভার বেন্দা এলাকার বাসিন্দা জামাল হোসেন জানান, স্থানীয় সুপার ব্রীক্স ভাটার মালিক কাঞ্চনপুর গ্রামের রিকাইল শেখের কাছে ৪ একর ৪৪ শতাংশ জমির চার বছরের লিজ দেয়। লিজের বকেয়া প্রায় ৮ লাখ টাকা এবং জমিও ফেরত দিচ্ছে না। টাকা চাইতে গেলে তাকে বিভিন্ন ধরনের হুমকি এবং জীবননাশের ভয় দেওয়া হয়। বিষয়টি তিনি সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে অভিযোগ দিলেও কোনো সাড়া মেলেনি।
তিনি আরও জানান, এই জমিটুকুই তার একমাত্র সম্বল। দুই সন্তানের মধ্যে কন্যা মেডিকেলে এবং পূত্র মাদ্রাসায় লেখাপড়া করলেও তাদের খরচ জোগাতে পারছেন না। ফলে কোন প্রকার আয় ইনকামহীন জামাল হোসেন এখন বিভিন্ন দায়-দেনায় পড়ে এখন এলাকা ছাড়া।
বুধবার ১১টার দিকে নড়াইল প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে জেলার কালিয়া পৌরসভার বেন্দা এলাকার বাসিন্দা মৃত ফায়েক শিকদারের পূত্র জামাল হোসেন (৬০) জানান, বেন্দা মৌজার ৪টি দাগে পৈত্রিক এবং নিজের ক্রয়কৃত মোট ৪ একর ৪৪ শতাংশ জমি রয়েছে। ২০১৭ সালের ২৬ জুলাই পার্শ্ববর্তী কাঞ্চনপুর এলাকার মৃত আকাম শেখের পূত্র রিকাইল শেখ তার এই জমি প্রতি বছর দুই লাখ টাকার চুক্তিতে লিজ নিলেও প্রথম বছর ১ লাখ টাকা পরিশোধ করে। এরপর থেকে রিকায়েল শেখ আর এক টাকাও প্রদান করেনি। বিভিন্ন সময় ভাটার মালিকের কাছে পওনা টাকার জন্য গেলেও তাকে নানা প্রকার হুমকি ধমকি ও জীবননাশের ভয় দেখানো হয়ে থাকে। বিষয়টি তিনি স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ, উপজেলা ও পুলিশ প্রশাসনকে জানালেও কোন সুফল পাননি। এদিকে লোকালয়ে গড়ে ওঠা এই অবৈধ ভাটা বন্ধের জন্য যশোর ও ঢাকা পরিবেশ অধিদপ্তর এবং খুলনা ও ঢাকা দুর্নীতি দমন কমিশনে অভিযোগ করলেও কোনো সাড়া মেলেনি। চার বছরে অর্থিক ক্ষতিসহ মোট ১৪ লক্ষ টাকা দাবি করেন।
জানা গেছে, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ১ মাইলের মধ্যে ইটভাটা করা যাবেনা এ ধরনের সরকারি নির্দেশনা থাকলেও তা উপেক্ষা করে লোকালয়ে গড়ে ওঠা এই সুপার ব্রীক্সের ভাটার ৫শ গজের মধ্যে কাঞ্চনপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় এবং পাঁচকাহুনিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় রয়েছে।

© এই নিউজ পোর্টালের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি

ফেসবুকে শেয়ার করুন

More News Of This Category
পরীক্ষামূলক সম্প্রচার
Developed by: A TO Z IT HOST
Tuhin
x